ভালোবাসা আল্লাহর পক্ষ থেকে যেভাবে নিয়ামত হিসেবে আসে

১৩ অক্টোবর ২০২১, ০১:৩০ পিএম | আপডেট: ৩০ নভেম্বর ২০২১, ১২:৪০ পিএম


ভালোবাসা আল্লাহর পক্ষ থেকে যেভাবে নিয়ামত হিসেবে আসে
ছবি সংগৃহীত

মানুষের ভালোবাসা পাওয়া পরম ভাগ্যের ব্যাপার। সবাই মানুষের ভালোবাসা পায় না, সবাই প্রিয় হয়ে উঠতে পারে না। মানুষের ভালোবাসা মহান আল্লাহর সেরা দান। এটি অমূল্য সম্পদ। পৃথিবীর সব কিছু দিয়েও হৃদয়ের এ ভালোবাসা কেনা যায় না। এটা একান্তই আল্লাহপ্রদত্ত। পবিত্র কোরআনে এসেছে, ‘পৃথিবীর যাবতীয় সম্পদ ব্যয় করলেও তুমি তাদের হৃদয়ে ভালোবাসা স্থাপন করতে পারতে না।’ (সুরা আনফাল, আয়াত : ৬৩

কাজেই মহান আল্লাহ যাদের মানুষের কাছে প্রিয় করেছেন, মানুষের অন্তরে তাদের প্রতি ভালোবাসা দিয়েছেন, তাদের উচিত এর জন্য মহান আল্লাহর দরবারে বিশেষভাবে শোকরিয়া আদায় করা। কেননা, দুনিয়ার যাবতীয় ধন-সম্পদের চেয়েও দামি ও মূল্যবান ভালোবাসা দ্বারা মহান আল্লাহ তাকে সিক্ত করেছেন। এতে কোনো সন্দেহ নেই যে মানুষের মনে ভালোবাসা সৃষ্টি হয় আল্লাহর পক্ষ থেকে।

আবু হুরায়রা (রা.) থেকে বর্ণিত, নবী (সা.) বলেছেন, ‘যখন আল্লাহ তাআলা কোনো বান্দাকে ভালোবাসেন, তখন তিনি জিবরিল (আ.)-কে ডেকে বলেন, আল্লাহ অমুক বান্দাকে ভালোবাসেন, তুমিও তাকে ভালোবাসবে। তখন জিবরিল (আ.) তাকে ভালোবাসেন এবং তিনি আসমানবাসীদের ডেকে বলেন, আল্লাহ অমুককে ভালোবাসেন, অতএব তোমরাও তাকে ভালোবাসবে। তখন আসমানবাসীরাও তাকে ভালোবাসে। তারপর আল্লাহর পক্ষ থেকে দুনিয়াবাসীদের মধ্যে তার জনপ্রিয়তা সৃষ্টি করা হয়।’ (বুখারি, হাদিস : ৬০৪০)