বয়স ৫০ পেরোনোর পর হাড় শক্তিশালী করবে যেসব খাবার

০৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:৪৭ পিএম | আপডেট: ৩০ নভেম্বর ২০২১, ০৮:১১ এএম


বয়স ৫০ পেরোনোর পর হাড় শক্তিশালী করবে যেসব খাবার
ছবি সংগৃহীত

বয়স বাড়তে থাকার সঙ্গে সঙ্গে নানা রকম সমস্যা ঘিরে ধরে। এসব সমস্যার মধ্যে অন্যতম একটি সমস্যা হচ্ছে— হাড়ের শক্তি কমে যাওয়া। ফলে অনেক সময় হাড়ে চিড় ধরে। প্রচণ্ড ব্যথা হয়। বিশেষ করে নারীদের মনোপজের পরে অস্টিওপোরোসিস অথবা হাড়ের ঘনত্ব কমে যাওয়ার ঝুঁকি বেশি থাকে। এ ছাড়া বয়স ৫০ বছর পার হলে অনেকেরই হাড়ের শক্তি অনেক কমে যায়। এ কারণে অনেককে ছড়ির সাহায্য নিয়ে চলাচল করতে হয়।

কিন্তু ডায়েটিশিয়ানরা এমন কয়েকটি খাবারের কথা উল্লেখ করেছেন, যেগুলো খেলে ৫০ বছরের পরও হাড় শক্তিশালী করতে সহায়ক হয়ে থাকে। জানুন এসব খাবার সম্পর্কে—

১. সবুজ শাক
বিভিন্ন সবুজ শাকগুলো ভিটামিন কে এর অনেক ভালো উৎস। আর ভিটামিন কে হাড়ের ঘনত্ব বৃদ্ধি করতে এবং হাড়ের স্বাস্থ্য ভালো করতে অনেক কার্যকরী। বিভিন্ন ধরনের সবুজ শাকের অর্ধেক কাপ পরিমাণও আপনার দৈনিক ভিটামিন কে এর ৪০০ ভাগেরও বেশি সরবরাহ করে থাকে।

২. সয়া দুধ
সয়া দুধ হচ্ছে তৃণভিত্তিক পানীয়, যেটি সয়াবিন ভিজিয়ে, পিষে এবং সে মিশ্রণকে সিদ্ধ ও ছেঁকে তৈরি করা হয়। এটি হাড়ের শক্তি বৃদ্ধি করে এবং দুধের খুন ভাল বিকল্প হিসেবেও কাজ করে। সয়া দুধের পাশাপাশি দই এবং টফুতেও হাড়ের শক্তি বৃদ্ধিকারক অতিরিক্ত ক্যালসিয়ম থাকে।

৩. ডিম
ডিম হচ্ছে ভিটামিন ডির অনেক ভালো উৎস। আর এ কারণে হাড়ের শক্তি বৃদ্ধি করতে সহায়তা করে ডিম। তাই বয়স বেশি হয়ে গেলে আপনার দৈনিক ভিটামিন ডির চাহিদা পূরণ করতে পারেন ডিম থেকেই।

৪. পনির
অনের ভালো একটি নাস্তার পাশাপাশি পনির ক্যালসিয়ামেরও অনেক ভালো উৎস। আর এ কারণে এটি আপনার হাড়ের শক্তি বৃদ্ধি করতে অবদান রাখে। তাই হাড়কে শক্তিশালী করতে পনির বা খাস্তা পনির খেতে পারেন।